বিষয় :

ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট নকল করে প্রতারণা, ডিজিটাল আইনে মামলা


সকালের-সময় রিপোর্ট  ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১১:১২ : অপরাহ্ণ

ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট নকল করে নিয়োগ দিয়ে প্রতারণা করছে একটি চক্র। এর থেকে সবাইকে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে ভূমি মন্ত্রণালয়। জাতীয় তথ্য বাতায়নের (পোর্টাল) আওতাধীন ওয়েবসাইটের আদলে এমন ভুয়া ওয়েবসাইট বানিয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সংস্থার ভুয়া নিয়োগপত্র ইস্যু করে প্রতারণার চেষ্টা হচ্ছে বলে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

রোববার মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, রোববার মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ভূমি প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (এলএটিসি) ইলেক্ট্রিশিয়ান মো. রুহুল আমিন কর্তৃপক্ষকে জানান কে বা কারা তাকে ফোন করে জানায় তারসহ আরও তিনজনের নামে ‘www.latcgovbd.com’ ওয়েবসাইটে নিয়োগপত্র ইস্যু করা হয়েছে।

পরে মন্ত্রণালয় দেখতে পায় যে ভূমি প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (এলএটিসি) ওয়েবসাইটের আদলে একটি নকল সাইট তৈরি করেছে একটি প্রতারক চক্র। এ ঘটনায় নিউ মার্কেট থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে ভূমি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে।

এলএটিসির প্রকৃত ওয়েবসাইট (www.latc.gov.bd) নকল করে ভুয়া একটি ওয়েবসাইট (www.latcgovbd.com) তৈরি করে রুহুল আমিনসহ আরও তিনজন ব্যক্তি ‘মো. রায়হান রহমান’, ‘মো. আব্দুস সালাম’ ও ‘মো. আরিফুল ইসলাম’ এর নামে গত ২১ জুন ভুয়া নিয়োগপত্র ইস্যু করেছে প্রতারক চক্র। নকল ওয়েবসাইটটির ডোমেইনে নামের বানান ভূমি প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ওয়েবসাইটের নামের বানানের থেকে আলাদা হলেও খুব কাছাকাছি।

মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, প্রকৃতপক্ষে এলএটিসি থেকে রায়হান রহমান, আব্দুস সালাম ও আরিফুল ইসলামের নামে কোনো নিয়োগপত্র ইস্যু করা হয়নি। নিয়োগপত্রগুলো ভুয়া। গত ২১ জুন ৪৬২ নং স্মারকে এলএটিসি কার্যালয়ের ইলেক্ট্রিশিয়ান রুহুল আমিনকে নিয়োগপত্র দেওয়া হয়েছিল। তিনি বর্তমানে এলএটিসিতে কর্মরত।

ভূমি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, প্রতারক চক্র নিয়োগপ্রার্থীদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করছিল কিংবা করছে। ভূমি প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রকৃত ওয়েবসাইট (www.latc.gov.bd) অন্যদিকে ভুয়া ওয়েবসাইটের (www.latcgovbd.com)।

ভুয়া ওয়েবসাইটের সেকেন্ড লেভেল ডোমেইন ‘latcgovbd’ এবং টপ লেভেল ডোমেইন ‘.com’ অন্যদিকে ভূমি প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রকৃত ওয়েবসাইটের এড্রেসের সেকেন্ড লেভেল ডোমেইন ‘latc’ এবং টপ লেভেল ডোমেইন .gov.bd যা কেবল বাংলাদেশ সরকারের জন্য সংরক্ষিত।

বিষয়টি এলএটিসি ওয়েবসাইটের মূল পোর্টাল ডেভেলপার এটুআইকে জানানো হয়েছে বলে ভূমি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। ভূমি মন্ত্রণালয় কিংবা এর আওতাধীন দফতর বা সংস্থায় চাকরি দেওয়ার নাম করে কেউ যদি অর্থ দাবি করে তাহলে তৎক্ষণাৎ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে জানাতে বলা হয়েছে।

সকালের-সময়/এমএফ

Print Friendly, PDF & Email

আরো সংবাদ