ব্লাংক চেক দিয়ে রফাদফার চেষ্টা ডাক্তারের

ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু, জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে নবজাতক


নিউজ ডেস্ক  ৭ জুন, ২০২৪ ৪:৪১ : অপরাহ্ণ

লোহাগাড়ায় সাউন্ড হেলথ হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে ব্লাংক চেক জমা দিয়েছেন অভিযুক্ত চিকিৎসক।

ওই প্রসূতির নাম কহিনুর আক্তার (২৫)। তিনি উপজেলার চুনতি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড নয়াপাড়ার বাসিন্দা সাহাব উদ্দীনের স্ত্রী। অভিযুক্ত চিকিৎসকের নাম ডা. মিতালী কর্মকার। জন্ম নেওয়া শিশুটি এখন আইসিইউতে। শ্বাসকষ্ট নিয়ে নবজাতকটি জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে।

নিহতের মামা ফখরুল ইসলাম বলেন, শনিবার সন্ধ্যায় আমার ভাগ্নি কহিনুর আক্তারের প্রসব বেদনা শুরু হলে আমরা তাৎক্ষণিকভাবে লোহাগাড়া সাউন্ড হেলথ হাসপাতালে নিয়ে আসি।

আনার পর চিকিৎসক প্রায় ৫ ঘণ্টা চেম্বারে অন্য রোগী দেখার পর অনেকটা ঘুমের চোখে আমার ভাগ্নিকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যান। পর দিনই রোগীর অবস্থা খারাপ হতে থাকে। এমতাবস্থায় ডা. মিতালী সুকৌশলে রোগীকে নিয়ে চট্টগ্রাম পার্কভিউ হাসপাতালে ভর্তি করে আমাদের মোবাইল নাম্বার ব্লক করে দেন। পরে রোগী হাসপাতালের আইসিইউতে মারা যান।

পার্কভিউ হাসপাতাল থেকে লাশের অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে সাউন্ড হেলথ হাসপাতালের সামনে নিয়ে যাই। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমাদের অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে দ্রুত হাসপাতাল ত্যাগ করতে নানারকম হুমকি দেন এবং পুলিশের ভয় দেখান। স্থানীয়রা জড়ো হলে পুলিশ এসে সমাধানের আশ্বাস দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে।

ব্লাংক চেক দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি ডা. মিতালী। তিনি বলেন, সমাধানের চেষ্টা চলছে।

লোহাগাড়া থানার ওসি রাশেদুল ইসলাম জানান, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি জানানোর পরপরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করি। রোগী মারা যাওয়ার বিষয়ে এখন পর্যন্ত ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ কোনো অভিযোগ করেননি। যদি ওই ঘটনায় অভিযোগ করে তবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহনম্মদ হানিফ বলেন, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। এ ঘটনায় ইতোমধ্যে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এসএস/এমএফ

Print Friendly, PDF & Email

আরো সংবাদ